HP Scanjet-200 স্ক্যানার রিভিউ

হাইলাইটস
রেটিং
কিনবেন কোত্থেকে
সুবিধা: সহজে বহনযোগ্য। দ্রুত স্ক্যান করে। পাওয়ার এ্যাডাপ্টার ছাড়াই শুধু ইউএসবি ক্যাবল দিয়েই পাওয়ার পায় এবং স্ক্যানিং করে। বিদু্ত সাশ্রয়ী।

অসুবিধা: দাম একটু বেশি।
4.5/5N/A
hp-200HP Scanjet-200 দেশের বাজারে একটি বিশেষ স্থান দখল করে নিয়েছে। দেখতে সুন্দর এই স্ক্যানারটি অনেক ল্যাপটপ থেকে হালকা। এটা সহজে বহনযোগ্য। টেকসই গঠণ, সুন্দর ডিজাইন এবং কালার অপরিবর্তিত রেখে উচ্চ রেজুলুশনে দ্রুত স্ক্যান করার ক্ষমতা স্ক্যানারটিকে বাজারের অন্যান্য একই মূল্যমানের স্ক্যানারগুলোর মধ্যে একটি বিশেষ জায়গা করে দিয়েছে।

ডিজাইন ও ফিচার

HP Scanjet-200 বেশ স্লিম (পুরুত্ব মাত্র ১.৭৫ ইঞ্চি); এর ওজন ১.৬১ কিলোগ্রাম যা সমসাময়িক অনেক স্ক্যানারের তুলনায় কম ভারী। স্ক্যানারটির সামনের ডানদিকে আছে চারটি কুইক একশন টাচ বাটন যা শুধু একটি স্পর্শের মাধ্যমেই ডকুমেন্ট স্ক্যানের সুযোগ দেয়। এর পেছনের প্যানেলে আছে একটি হাই স্পীড ইউএসবি পোর্ট যা একই সাথে স্ক্যানারটিকে কম্পিউটার এর সাথে সংযোগ এবং পাওয়ার দিয়ে থাকে। অর্থাৎ আপনাকে আলাদা কোন এ্যাডাপ্টার ব্যবহার করে স্ক্যানারটিকে পাওয়ার দেয়ার ঝামেলা ভোগ করতে হবে না এবং সেই সাথে এটা বিদ্যুৎ সাশ্রয়ও করবে।

পারফরম্যান্স

hp-2001 HP Scanjet-200 স্ক্যানারটি দিয়ে ২৪০০ ডিপিআই পর্যন্ত স্ক্যান করা যায়। সর্বোচ্চ ৮.৫*১১.৭ ইঞ্চি সাইজের ডকুমেন্ট সহজেই স্ক্যান করা যাবে এই স্ক্যানারটি দিয়ে। স্ক্যানারটির ওসিআর (OCR, Optical Character Recognition) ক্ষমতা যথেষ্ট কার্যকর এবং দ্রুতগতির। অর্থাৎ যেকোন পেপার ডকুমেন্টকে স্ক্যান করে জেপিইজি ফরম্যাটে যেমন সেভ করতে পারবেন ঠিক তেমনিভাবেই ওয়ার্ড ডকুমেন্টেও সেভ করতে পারবেন। পেপার ডকুমেন্টে কোন লেখা থাকলে সেগুলো মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে এডিটও করতে পারবেন। তবে অন্যান্য স্ক্যানারগুলোর মতোই হাতের লেখাকে এখনও ঠিকমতো স্ক্যান করতে পারে না এই স্ক্যানারটি।
HP Scanjet-200 একই মূল্যমানের অন্যান্য ব্র্যান্ড স্ক্যানারের তুলনায় দ্রুতগতিসম্পন্ন। ১০ x ১৫ সে.মি এর একটি কালার ফটো ২০০ ডিপিআই-এ স্ক্যান করতে এর সময় লাগে ২১ সেকেন্ড ।
স্ক্যানারটিতে স্ক্যান করতে চাইলে শুধুমাত্র এর কুইক টাচ বাটনে স্পর্শ করলেই হবে। স্ক্যান করার জন্য বিভিন্ন অপশন টুইকিং-এর ব্যবস্থাও রয়েছে। টাচ বাটনের সাহাজ্যে একই সাথে ই-মেইল, পিডিএফ, ফটোফাইলও স্ক্যান করা যাবে। এছাড়া ম্যানুয়ালি স্ক্যান করতে চাইলে ব্যবহার করতে হবে স্ক্যানারটির জন্য প্রদত্ত সফটওয়্যার। সফটওয়্যারটি আমাদের কাছে ব্যবহারকারী বান্ধব বলেই মনে হয়েছে।
স্ক্যানারটির সবচেয়ে ভাল দিক হল এর রঙ সংবেদনশীলতা। যেকোন রঙিন ফটো স্ক্যান করলে কালার স্যাচুরেশন প্রায় হচ্ছেই না বলা যায়; অর্থাৎ স্ক্যান করা ফটোটির কালার স্ক্যানিং-এর পর কম্পিউটার স্ক্রিণে প্রায় অবিকলই থাকে।
স্ক্যানারটির স্ক্যান কোয়ালিটি প্রশংসনীয়। স্ক্যান করা প্রত্যেকটি ডকুমেন্টই ছিল ব্রাইট এবং ক্লিয়ার । এছাড়াও এর এডিটিং সফটওয়্যার দিয়ে পুরানো ডকুমেন্ট এবং কালার ফটো ক্লিয়ার করে নেয়ার ব্যবস্থা আছে।

hp-2002সিদ্ধান্ত

HP Scanjet-200 স্ক্যানারটির দাম অন্যান্য স্ক্যানারের তুলনায় বেশি । তবে এটি একটি ইউএসবি স্ক্যানার এবং একে আলাদাভাবে পাওয়ার দেয়ার প্রয়োজন হয় না, অর্থাৎ কেবল ইউএসবি কর্ড দিয়েই এটি কম্পিউটারের সাথে সংযোগ স্থাপন করবে এবং পাওয়ারও গ্রহণ করবে। এটা বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী। তবে এর সবচে বড় গুণ হলো এটা যেকোন ডকুমেন্টকে প্রায় অবিকলভাবেই স্ক্যান করতে পারে।

স্পেসিফিকেশন

প্রোডাক্টের নাম: HP Scanjet-200
স্ক্যানার টাইপ: ফ্ল্যাটবেড
স্ক্যান রেজুলুশন: ২৪০০ dpi (সর্বোচ্চ)
ডাইমেনশন: ৩৭৩ x ২৭৪ x ৪৪.৫ মি.মি
ওজন: ১.৭৬ কিলোগ্রাম

Leave a comment